‘আত্মবিশ্বাস’ই সফলতার চাবিকাঠি

জীবনে চলার পথে সবাইকে নানা প্রতিবন্ধকতার মধ্য দিয়ে যেতে হয়। কখনও বন্ধুত্ব শেষ হতে যায়, আবার কখনও কাছের মানুষ সারাজীবনের জন্য দূরে চলে যায়। তখন এই পৃথিবীতে নিজেকে অনেক একা লাগে। নিঃসঙ্গ মনে হয়। এই মুহূর্তে কেউ কেউ নিজের উপর বিশ্বাস হারিয়ে ফেলেন। এ সময় কেউ অপরাধের দিকে পা বাড়ান। আর কেউবা বেছে নেন আত্মহত্যার পথ। কিন্তু জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে বিশেষ করে পড়াশোনা কিংবা ক্যারিয়ারে সফলতার অন্যতম চাবিকাঠিই হলো আত্মবিশ্বাস। কেবল এর বলেই মানুষ কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌঁছতে পারে।

অনেকে আছেন যারা আত্মবিশ্বাসের অভাবে নিজেকে সঠিকভাবে তুলে ধরতে পারেন না। সেক্ষেত্রে জেনে নিন কিছু টিপস যা আপনার আত্মবিশ্বাস বাড়াতে সাহায্য করবে।

আশাবাদী হওয়া
পড়াশুনা কিংবা ক্যারিয়ার যে কোন ক্ষেত্রেই নিজের সম্পর্কে উচ্চ ধারণা পোষণ করুন। সবসময় ভাববেন, যে কোন কঠিন কাজ হোক না কেন আপনার দ্বারাই তা করা সম্ভব।  ভুল করেও মনে হতাশা স্থান দিবেন না। এমনকি হতাশাগ্রস্ত ব্যক্তি বা বস্তুর সংস্পর্শ থেকেও নিজেকে দূরে রাখুন। দেখবেন নিজের সম্পর্কে ধারণাটাই আপনার আত্মবিশ্বাস বাড়াতে সাহায্য করবে।

দুর্বলতা সম্পর্কে জানুন
নিজের শক্তিশালী এবং দুর্বল দিকগুলো জানতে পারলে এর উন্নয়ন ঘটানো সম্ভব। কাজেই সবার আগে নিজেকে সম্পূর্ণভাবে জানার চেষ্টা করুন। এতে এমনিতেই আত্মবিশ্বাস বাড়বে। নিজেকে সঠিকভাবে জানতে না পারলে আপনার ভেতরের সুপ্ত প্রতিভা কখনই জেগে উঠবে না।

কঠিন সময়ে হাসতে শিখুন
হাসিকে বলা হয় সব রোগের মহৌষুধ। আমরা জানি, কষ্টের মুহূর্তগুলোতে মানুষ হাসতে পারে না। সেসময় সুখের সময়গুলোর দিকে মনোযোগ দিন। দেখবেন তাহলে হাজারো কষ্টের মধ্যেও হাসতে পারবেন। সেইসঙ্গে মনের নেতিবাচক ধারণাগুলো দূরে সরিয়ে রাখুন। সবসময় ইতিবাচক চিন্তা আত্মবিশ্বাস বাড়াতে সাহায্য করবে।

শিখতে আগ্রহী হোন
দৈনন্দিন জীবন থেকে আমরা কত কিছুই না শিখে থাকি। আর এসব কিছুর শেখার মধ্যে আত্মবিশ্বাস তখনই তৈরি হবে যদি ব্যক্তির নিজের ভুল থেকে শিক্ষার্জন করার অভ্যাস থাকে। এতে পরবর্তীতে নতুন উদ্যোমে কাজ করার মানসিকতা তৈরি হবে।

পরিবর্তন নিয়ে আসুন
প্রতিদিনের ভুল কাজগুলো চিহ্নিত করে তা থেকে শিক্ষা গ্রহণ করুন। এভাবে প্রতিদিন একটি করে ভুল শুধরাতে থাকলে নিজের মধ্যে স্বাভাবিকভাবেই পরিবর্তন আসবে। ফলে নতুন যে কোন বাধা মোকাবেলা করা আপনার জন্য সহজ হবে। এতে আত্মবিশ্বাসও বাড়বে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.