‘উদীয়মান তরুণ নেতা পুরস্কার’ পাচ্ছেন বাংলাদেশের তানজিল

শান্তি ও অর্থনৈতিক সুযোগ সৃষ্টিতে অনন্য অবদান রাখার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দফতর ঘোষিত ‘উদীয়মান তরুণ নেতা পুরস্কার’ পেতে চলেছেন বাংলাদেশের তানজিল ফেরদৌস।

আগামী ২ মে এ পুরস্কার প্রদান করা হবে। বিশ্বের উদীয়মান ১০ তরুণ নেতার তালিকায় জায়গা করে নিয়েছেন বাংলাদেশের তানজিল।

তার সঙ্গে এই পুরস্কারে ভূষিত অন্যরা হলেন, ইরাকের সারা আবদুল্লাহ আবদুলরহমান, ইন্দোনেশিয়ার দিয়োভিও আলফাত, তুরস্কের ইসে সিফৎসি, লিথুয়ানিয়ার জিনা সালিম হাসান হামু, পাকিস্তানের দানিয়া হাসান, নরওয়ের ন্যান্সি হার্জ, দক্ষিণ আফ্রিকার ইসাসিফিনকোসি এমদিঙ্গি, পানামার হোসে রদ্রিগেজ ও তাজিকিস্তানের ফিরুজ ইয়োগবেকভ।

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দফতর জানায়, শান্তি প্রতিষ্ঠায় তরুণ-তরুণীদের ইতিবাচক ভূমিকার স্বীকৃতি হিসেবে এই পুরস্কার দেয়া হচ্ছে তাদের। পুরস্কারপ্রাপ্তরা ২৯ এপ্রিল থেকে ১২ মে পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্র সফর করবেন, যেখানে জমকালো আয়োজনে পুরস্কার গ্রহণের পাশাপাশি তারা দক্ষতা বৃদ্ধি ও প্রজ্ঞা লাভের সুযোগ পাবেন।

তানজিল সম্পর্কে মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ২৪ বছর বয়সী তানজিল বাংলাদেশের তারুণ্য ও সামাজিক পর্যায়ে উন্নয়নমূলক কার্যক্রমের পাশাপাশি নারীর অধিকার প্রতিষ্ঠায় কাজ করছেন, ব্যক্তিগতভাবেও লিঙ্গ বৈষম্যকে মোকাবেলা করে চলেছেন তিনি।

২০১৫ সালে চট্টগ্রামে প্রতিষ্ঠিত ‘ভলান্টিয়ার ফর বাংলাদেশ’ নামে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সভাপতি তানজিল। বাংলাদেশের বৃহত্তম এ স্বেচ্ছাসেবী প্লাটফর্ম কয়েকশ’ তরুণকে নিয়ে সমাজের উন্নয়নমূলক বেশ কিছু কর্মসূচি বাস্তবায়ন করেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক বিনিময় বিষয়ক ব্যুরোর মতে, তানজিল মনে করেন, তারুণ্যকে সামাজিক কর্মকাণ্ডে যুক্ত ও উদ্বুদ্ধ করা গেলে তাদের চরমপন্থি কর্মকাণ্ড থেকে দূরে রাখা সম্ভব।

বর্তমানে তিনি রোহিঙ্গা শরণার্থীদের নিয়ে কাজ করছেন, যেন তারা উগ্রবাদের শিকার না হয়। জাগো ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবিরে ৫০০ শিশুর জন্য নিরাপদ আশ্রয় গড়ে তুলতে তার কর্মকাণ্ডও অবদান রেখেছে। কিশোরী ও নারীদের দক্ষতা অর্জনের মাধ্যমে আগামী দিনের নেতৃত্বে আনার জন্যও কাজ করছেন তানজিল।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.