এবার গেইলের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ

মাঠে ব্যাট হাতে যেমন আক্রমণাত্মক, তেমনি মাঠের বাইরে নানা বিতর্কে জর্জরিত ক্রিস গেইল। অস্ট্রেলিয়ার ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি প্রতিযোগিতা বিগ ব্যাশ লিগে খেলার সময় এক নারী সাংবাদিককে ‘ডেটিং’-এর প্রস্তাব দেওয়ায় জরিমানা দিতে হচ্ছে তাঁকে। সেই ঘটনার রেশ মিলিয়ে যেতে না যেতেই গেইলকে ঘিরে আরেকটি বিতর্ক। এবার তাঁর বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ এনেছেন এক নারী। ঘটনাচক্রে এই নারীও একজন অস্ট্রেলীয়।

অভিযোগটা বেশ গুরুতরই। গত বিশ্বকাপে খেলতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের সঙ্গে গেইল তখন অস্ট্রেলিয়ায়। ক্যারিবীয় দলের হয়ে কাজ করছিলেন সেই নারী। একদিন ড্রেসিং রুমে স্যান্ডউইচ নিয়ে গিয়েছিলেন তিনি। তখন শুধু একটা তোয়ালে পরে ড্রেসিং রুমে বসেছিলেন গেইল।

এরপরের ঘটনা অস্ট্রেলিয়ার ফেয়ারফ্যাক্স মিডিয়াকে নিজেই বর্ণনা করেছেন, “গেইলের সঙ্গে তখন আরেকজন খেলোয়াড় ছিলেন। হঠাৎ তিনি (গেইল) তোয়ালে নামিয়ে, তাঁর পুরুষাঙ্গ আংশিক প্রদর্শন করে আমাকে জিজ্ঞেস করলেন, ‘আপনি কি এটার খোঁজ করছেন?’ কথাটা শুনে আমি হতভম্ব হয়ে পড়েছিলাম। আর সঙ্গে সঙ্গে ঘর থেকে বেরিয়ে এসেছিলাম।”

গত বিশ্বকাপে মাত্র চতুর্থ ব্যাটসম্যান হিসেবে ওয়ানডেতে ডাবল সেঞ্চুরি করেছিলেন গেইল। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তাঁর ২১৫ রানই বিশ্বকাপের প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি। তবে গেইলের এমন কীর্তি নিয়ে মোটেও উচ্ছ্বসিত নন ওই নারী। এই আক্রমণাত্মক ওপেনারের ‘কীর্তিকলাপে’ তিনি বরং বিরক্ত, ‘এ ধরনের ব্যক্তিকে বীরের আসনে বসতে দেখলে আমি রীতিমতো অসুস্থ হয়ে পড়ি! তিনি নারীদের সঙ্গে যেমন আচরণ করেন তাতে বীরত্বের কিছু নেই।’

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.