এবার ভবিষ্যদ্বাণী করবে বিড়াল!

তার আয়ু ছিল মাত্র ৩৩ মাস। কিন্তু অল্প সময়েই বিশ্বব্যাপী দারুণ খ্যাতি পেয়েছিল অক্টোপাস পল। এ সামুদ্রিক প্রাণী ২০০৮ ইউরোতে জার্মানির ৬টি ম্যাচের ভবিষ্যদ্বাণী জানতে চাওয়া হয়েছিল পলের কাছে। ৪টি ম্যাচেরই সঠিক ফল জানায় সে। কিন্তু এতেও যারা বিস্মিত হননি তারা চমকে যান দুই বছর পরেই। বিশ্বকাপে জার্মানির ৭টি ম্যাচ নিয়েই সঠিক ভবিষ্যদ্বাণী জানায় অক্টোপাস পল। এমনকি স্পেন বিশ্বকাপ জিতবে বলেও ভবিষ্যদ্বাণী দেয় সে।
২০১০ সালের অক্টোবরেই মারা যায় অক্টোপাস পল। রাশিয়া বিশ্বকাপ সামনে রেখে এবার ভবিষ্যদ্বাণী দিতে প্রস্তুত এক বিড়াল। তার নাম অ্যাকিলিস। গ্রিক বীরের নাম নিয়েই এবারের বিশ্বকাপের ভাগ্য গণনা করবে অ্যাকিলিস নামের বিড়ালটি। সেন্ট পিটার্সবার্গের হার্মিটেজ জাদুঘরে থাকে অ্যাকিলিস। হাজার হলেও বিশ্বকাপের ফল আগেভাগে জানানোর মতো গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব তার কাঁধে। এ কারণেই এক সময়কার শীতকালীন রাজপ্রাসাদেই ঠিকানা হয়েছে অ্যাকিলিস ও তার সঙ্গীদের। ২০১৭ সালে কনফেডারেশন কাপে ভবিষ্যদ্বাণী করে হাতেখড়িও (‘পায়ে খড়ি’ বলা যায়) হয়েছে তার। বিজয়ী নির্ধারণের পদ্ধতিটা পলের মতোই। দু’টো পাত্রে খাবার রাখা হয়। একই খাবার, একই পাত্র। শুধু দুই পাত্রে মুখোমুখি হওয়া দুই দলের পতাকা সেঁটে রাখা। সেখান থেকে যে খাবারটা বেছে নেবে অ্যাকিলিস, ধরে নেয়া হবে সে দলকেই বিজয়ী মনে করছে সে। এর আগে প্রত্যেক দলের চার্ট, খেলার সূচি দেখে প্রস্তুতি সেরেছে অ্যাকিলিস। বধির হওয়াতে মনোযোগ অন্যদিকে সরে যাওয়ারও কোনো সুযোগ নেই। তবে অন্য প্রস্তুতিও নিতে হচ্ছে অ্যাকিলিসকে। তার আধ্যাত্মিক ক্ষমতা নিয়ে কারো সন্দেহ না থাকলেও অ্যাকিলিসের বিশাল বপুটা নিয়ে কাজ করতে হচ্ছে। হার্মিটেজ জাদুঘরের পাশের এক পোষা প্রাণীর দোকানে ব্যায়াম করানো হচ্ছে তাকে। এ প্রসঙ্গে রুশ প্রাণী চিকিৎসক আনা কনদ্রেতিয়েভা জানান, অ্যাকিলিস এখন কাজ করছে, ‘বিশ্বকাপের জন্য প্রস্তুত হচ্ছে সে। মানুষ ওকে স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি খাবার খেতে দেয়। সে যখন এখানে এসেছিল তখন ওকে বিড়াল নয়, ফুটবল মনে হচ্ছিল। আমরা তাই তার খাবারে কড়াকড়ি ব্যবস্থা নিয়েছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.