কলা খাওয়ার দৃশ্য নিষিদ্ধ!

যৌন সুড়সুড়ি দেওয়ার ভঙ্গীতে কলা খাওয়ার দৃশ্য ‘লাইভ’ অনলাইনে দেখানো নিষিদ্ধ করেছে চিনের বেশ কিছু ওয়েবসাইট।

শুধু ‘কলা খাওয়ার’ দৃশ্য নয়, মোজা পরা এবং এরকম আরও অসঙ্গত যৌন উত্তেজক কোনও কিছুর দৃশ্য লাইভ স্ট্রিমিং করার ওপর এই নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

চিনের ‘নিউ এক্সপ্রেস’ পত্রিকাকে উদ্ধৃত করে বিবিসিতে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

গত এপ্রিলে চিনের সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় বেশ কিছু জনপ্রিয় ‘লাইভ স্ট্রিমিং’ সাইটের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করে। এসব সাইটে অশ্লীল এবং সহিংস ভিডিও দেখানো হয় বলে অভিযোগ করা হয়েছিল। চিনের সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় মনে করছে এর ফলে সমাজের নৈতিক অবক্ষয় হতে পারে।

তবে সরকারের এসব পদক্ষেপ সত্ত্বেও চিনে এ ধরণের সাইটগুলোর জনপ্রিয়তা বাড়ছে। বিশেষ করে সেসব সাইটের, যেখানে ওয়েবক্যামের সামনে তরুণীরা নানা অঙ্গ-ভঙ্গী করে তাদের পুরুষ দর্শকদের বিনোদন দেওয়ার চেষ্টা করেন।

তবে ‘কলা খাওয়ার’ দৃশ্যের ওপর নিষেধাজ্ঞার খবরে চিনের সোশ্যাল মিডিয়া সাইটগুলোকে আলোচনা-সমালোচনা শুরু হয়েছে।

কিভাবে কলা খেলে সেটা যৌন সুড়সুড়ি আর কিভাবে খেলে নয়, সেটা কে ঠিক করবেন জানতে চেয়েছেন একজন।

আরেকজনের প্রশ্ন, পুরুষরা কি তাদের কলা খাওয়ার দৃশ্য লাইভ স্ট্রিমিং করতে পারবেন?

কেউ কেউ মন্তব্য করেছেন, কলা খাওয়া নিষিদ্ধ হওয়ার পর এখন হয়তো তারা ভিন্ন পথ খুঁজবে। কেউ যদি শসা খায়, তখন কি হবে? আরেকজনের প্রশ্ন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.