গেইল ৮০০ নট আউট

সেঞ্চুরি নেই! সেঞ্চুরি নেই। বিপিএল শেষ হতে চলেছে অথচ কোনো ব্যাটসম্যানের ব্যাট থেকেই তিন অঙ্কের রান আসেনি। উইকেটের সমালোচনার সঙ্গে সেঞ্চুরি না পাওয়ার হিসাব মেলাচ্ছিলেন অনেকে। তবে ক্রিস গেইল যেদিন ছন্দে থাকেন সেদিন খারাপ উইকেটের অজুহাতটা তাঁর সামনে ধোপে টেকে না। বিপিএলের পঞ্চম আসরের প্রথম শতকটি এলো এই ক্যারিবীয় ব্যাটসম্যানের ব্যাট থেকে। গেইলের অতিমানবীয় ব্যাটিংয়ে খুলনা টাইটানসকে হারিয়ে কোয়ালিফায়ার পর্বে উঠে গেল রংপুর রাইডার্স।

জয়ের জন্য রংপুরের সামনে ১৬৮ রানের লক্ষ্য রেখেছিল খুলনা টাইটানস। ঢাকার উইকেটে রান নেওয়া সহজ নয়, কথাটাকে প্রমাণ করতেই গিয়ে কিনা ২৫ রানের মধ্যে দুই উইকেট হারিয়ে বসে রংপুর।

অন্যপ্রান্তে দুজন সতীর্থ হারালেও গেইল খেলেছেন নিজের মতো। ২৩ বলে তুলে নেন আসরের তৃতীয় অর্ধশতক। বাকি পঞ্চাশ রান করতে খেললেন আরো ২২ বল। ১০টি অতিকায় ছক্কা আর ছয়টি চারে বিপিএলে নিজের চতুর্থ শতক পূর্ণ করলেন এই ক্যারিবীয় রান-দস্যু। ২০১২ সালে বিপিএলের প্রথম আসরের প্রথম শতকটিও আসে গেইলের ব্যাট থেকে।

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে গেইলের এটি ১৯তম শতক। বড় বড় সব ক্রিকেট তারকার টেস্ট ও ওয়ানডে মিলেও নেই এতগুলো শতক! আজ আরো একটি রেকর্ড গড়লেন গেইল। ২০১৩ সালের বিপিএলে ঢাকার হয়ে সিলেট রয়েলসের বিপক্ষে এক ইনিংসে ১২টি ছক্কা মেরেছিলেন তিনি। আজ নিজের সেই রেকর্ড ভেঙে দিলেন গেইল। বিপিএলের ইতিহাসে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রানের রেকর্ডও এটি। এর আগে ২০১২ সালে ১১৬ রান করেছিলেন গেইল।

আজ আরেকটি রেকর্ড গড়েছেন এই ক্যারিবীয় জায়ান্ট। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট আজ ৮০০তম ছক্কা মারলেন তিনি। বলকে গ্যালারিতে পাঠাতে জুড়ি নেই এই ব্যাটসম্যানের। ছয় মারার পরিসংখ্যানে গেইলের আশপাশেও নেই কেউ। এই ম্যাচে ১৪ ছক্কা মারা গেইলের মোট ছয় ৮০১টি। টি-টোয়েন্টি ৫০৬টি ছয় মেরে গেইলের পেছনে রয়েছেন তারই স্বদেশি কাইরন পোলার্ড। ৪০৮টি ছয় মেরে তৃতীয় স্থানে রয়েছেন রংপুরের অপর তারকা ক্রিকেটার ব্রেন্ডন ম্যাককালাম।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.