ট্রেন দুর্ঘটনার প্রধান কারণ চালকের ক্লান্তি

বাংলাদেশে কেন এত ট্রেন দুর্ঘটনা? চালকদের কি প্রশিক্ষণের অভাব? ট্রেন চালক ফরিদা আক্তার ডয়চে ভেলেকে বলছিলেন, ‘‘প্রত্যেক চালককে দুই বছর প্রশিক্ষণ নিয়েই ফিল্ডে আসতে হয়৷’’

ফলে প্রশিক্ষণের অভাব থাকার কথা না৷ আসলে ডিউটির চাপে ক্লান্ত চালকরা৷’’

তিনি আরো বলেন, ‘‘চালক সংকটের কারণে তাদের রোস্টার ঠিক থাকে না৷ কখনও ২৪ ঘন্টাও ডিউটি করতে হয়৷”

মাঝে মধ্যেই বাংলাদেশে ট্রেন লাইনচ্যুত বা দুর্ঘটনার খবর পাওয়া যায়৷ গত দুই দিনে দু’টি দুর্ঘটনা ঘটেছে৷ রংপুরে ইঞ্জিন ঘুরাতে গিয়ে চালক ট্রেনের বগিতেই ধাক্কা দিয়েছেন৷ আর আখাউড়ায় একটি ট্রেন লাইনচ্যুত হয়েছে৷ দুই ঘণ্টা পর পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়৷

বুয়েটের দুর্ঘটনা গবেষণা ইনস্টিটিউটের সাবেক পরিচালক অধ্যাপক শামসুল হক ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘আমাদের নজর উন্নয়নের দিকে৷ কিন্তু মেরামত যে একটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয় সেদিকে বাজেটও কমে যাচ্ছে৷ বৃটিশ আমলের রেললাইন নিয়মিত সংস্কার করা প্রয়োজন৷ সেগুলো কি হচ্ছে? পাশাপাশি অনেকদিন ধরেই রেলে জনবল কম৷ এটা অন্য সেক্টরের মতো না৷ একজনকে নিয়োগ দিলে তাকে প্রশিক্ষণ দিয়ে কাজে লাগাতে সময় লাগে৷

সূত্র: ডয়চে ভেলে।