ঢাকা আসছে নতুন ৪ হাজার বাস

ধানমন্ডি-নিউমার্কেট-আজিমপুরের মতো এবার উত্তরা এবং মতিঝিলেও পৃথকভাবে চালু হতে যাচ্ছে চক্রাকার বাস সার্ভিস। নির্দিষ্ট কোম্পানির তত্ত্বাবধানে সাড়ে চার হাজার বাস নামানো হবে। প্রতিটি বাসেই র‌্যাপিড পাস কার্ডের মাধ্যমে ভাড়া দেওয়া যাবে।

বুধবার (৩ এপ্রিল) বিকেলে ডিএসসিসি সভাকক্ষে রাজধানীর গণপরিবহনে শৃঙ্খলা ফেরানোর লক্ষ্যে গঠিত বাস রুট রেশনালাইজেশন-সংক্রান্ত কমিটির পঞ্চম বৈঠক শেষে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র সাঈদ খোকন এ সিদ্ধান্তের কথা জানান।

মেয়র বলেন, চলতি মাসের শেষ সপ্তাহে মতিঝিলে চক্রাকার এ বাস সার্ভিস চালু হবে। সেই সঙ্গে মে মাসের প্রথম সপ্তাহে উত্তরায় এই চক্রাকার বাস সার্ভিস চালু হবে। এই সেবার মাধ্যমে কম খরচে স্বাচ্ছন্দ্যে যাত্রীরা চলাচল করতে পারবেন। পাশাপাশি যানজট নিরসনেও চক্রাকার বাস সার্ভিস ভূমিকা রাখবে। প্রতিটি বাসেই র‌্যাপিড পাস কার্ডের মাধ্যমে ভাড়া পরেশোধ করা যাবে।

তিনি বলেন, নির্দিষ্ট কোম্পানির তত্ত্বাবধানে সাড়ে চার হাজার বাস নামানো হবে। পুরো রুট রেশনালাইজেশন কাজ শেষ হতে দুই বছর সময় লাগবে। কারণ এখানে টার্মিনাল, ডিপো, চালকদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করতে হবে। এসব চক্রাকার বাস রুট রেশনালাইজেশন প্রক্রিয়ার ছোট ছোট অংশ।

তিনি আরও বলেন, ধানমন্ডি-নিউমার্কেট-আজিমপুর রুটের চক্রকার বাস সেবা এরইমধ্যে চালু হয়েছে। এখন হয়তোবা কিছুটা ক্রুটি বিচ্যুতি রয়েছে। তবে আগামী ১৫ দিনের মধ্যেই যাত্রীরা এর সার্বিক সুবিধা ভোগ করতে পারবেন।

ডিএসসিসি মেয়র সাঈদ খোকনের সভাপতিত্বে সভায় ডিএনসিসি মেয়র আতিকুল ইসলাম, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এসডিজিবিষয়ক সচিব আবুল কালাম আজাদ, বিআরটিসির চেয়ারম্যান ফরিদ উদ্দিন আহমেদ, বিআরটিএ চেয়ারম্যান মশিউর রহমান, পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার মো. রেজাউল আলম, সড়ক পরিবহন নেতা খন্দকার এনায়েত উল্লাহ, ডিটিসিএ নির্বাহী পরিচালক রকিবুর রহমান, গণযোগাযোগ বিশেষজ্ঞ সালাহ্উদ্দীনসহ বিশিষ্ট ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন। দৈনিক প্রজন্ম ডটকম ।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.