তৈরি হচ্ছে ৭০ তলা কাঠের ভবন

কাঠ দিয়ে বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু ভবন তৈরির পরিকল্পনা করেছে জাপানের একটি কোম্পানি। ২০৪১ সালে জাপানের ৩৫০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ভবনটি নির্মাণের পরিকল্পনা করেছে সুমিতোমো ফরেস্ট্রি নামের কোম্পানি। ডব্লিউ৩৫০ নামের ভবনটি হবে ৭০ তলা বিশিষ্ট।

কোম্পানিটি জানায়, কাঠামোর ১০ শতাংশে স্টিল আর বাকী অংশে প্রায় ১ লাখ ৮০ হাজার ঘনমিটার স্থানীয় কাঠ ব্যবহার করা হবে। ভবনটিতে প্রায় আট হাজার ঘর এবং প্রতি তলার বারান্দায় বৃক্ষ ও লতাপাতা থাকবে।

টোকিওতে প্রায়ই ভূমিকম্প হয়। আর এই প্রাকৃতিক এই দূর্যোগ মোকাবিলায় ভবনটির কেন্দ্রে ৩৫০ মিটারের একটি কাঠ ও স্টিলের স্তম্ভ থাকবে। এর সঙ্গে সংযুক্ত থাকবে একটি ডায়াগনাল স্টিল ভাইব্রেশন-কন্ট্রোল।

ধারণা করা হচ্ছে, প্রকল্প বাস্তবায়নে জাপানি মুদ্রায় প্রায় ৬ হাজার কোটি ইয়েন (৫৬০ কোটি ডলার) ব্যয় হবে। কিন্তু একইধরনের প্রচলিত একটি আকাশচুম্বি ভবন তৈরি করতে ব্যয় হয় দ্বিগুণ অর্থ।

তবে, প্রযুক্তিগত উৎকর্ষতার কারণে ২০৪১ সালে এই ভবনের নির্মাণকাজ শেষ হওয়ার আগেই নির্মাণ খরচ আরো কমে আসবে বলে আশা করছে সুমিতোমো।

প্রসঙ্গত, বিশ্বে বিভিন্নস্থানে কাঠের নির্মিত আকাশচুম্বি ভবন হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের মিনেসোটা রাজ্যের মিনিয়াপলিসে কাঠের তৈরি ১৮-তলা একটি অফিস ভবন আছে। এ ছাড়া কানাডার ভ্যাঙ্কুভারে ৫৩ মিটার উঁচু কাঠের তৈরি একটি ভবন আছে যা বর্তমানে বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু কাঠের তৈরি স্থাপনা হিসেবে স্বীকৃত।

তথ্যসূত্র: http://www.bbc.com/news/technology-42839463

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.