নায়িকাকে অজ্ঞান করে গহনা নিয়ে গৃহকর্মীর চম্পট

মডেল ও অভিনেত্রী ঈশিকা খানকে অজ্ঞান করে গহনা নিয়ে পালিয়ে গেছেন তার বাসার গৃহকর্মী।

চায়ের সঙ্গে নেশাজাতীয় দ্রব্য মিশিয়ে খাওয়ানোয় বেশ অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি।

পরে তাকে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

মঙ্গলবার রাতে নিজের ফেসবুক ও টুইটারে ঈশিকা নিজেই এসব তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি লিখেছেন, আমার বাসার কাজের মেয়েটা কাল (সোমবার) রাতে আমার বিয়ের সব গহনা (অর্নামেন্ট) এবং আমার আম্মুর সব গহনা চুরি করে ভেগে গেছে।

ঈশিকা খান বলেন, গতকাল (সোমবার) বিকালে সে আমাদের সবাইকে চা খাইয়েছিল। চায়ে ঘুমের ওষুধ দিয়েছিল। রাতে সবাই যখন ঘুমে, তখন সব নিয়ে গেছে।

তিনি আরও বলেন, ঘুমের ওষুধে আমি অসুস্থ হয়ে স্কয়ার হাসপাতালে ছিলাম। একটু আগে (মঙ্গলবার) সে (গৃহকর্মী) যখন আসতেছিল না, তখন আম্মু সব কিছু চেক করে দেখেন- কিছুই নেই। সুতরাং সবাই সাবধান।

তবে স্বর্ণলংকার ও খোয়া যাওয়া জিনিসপত্রের মূল্যমান কত হবে তা জানাননি এই মডেল।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.