বিশ্বকাপে থাকছে ধোনির ‘শত্রু’ স্পাইডারকাম

ঝুলন্ত ক্যামেরা স্পাইডারকামের জন্য কিছুদিন আগে তেলেবেগুনে জ্বলে উঠেছিলেন মহেন্দ্র সিংহ ধোনি। ২৩ জানুয়ারি অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে পঞ্চম ওয়ানডেতে বিরাট কোহলির একটি শট ওই ক্যামেরায় লেগে মাটিতে পড়ে। চার রান পাওয়া থেকে বঞ্চিত হয় ভারত। সংবাদ সম্মেলনে টিভি চ্যানেলকে একহাত নিয়ে জরিমানা দিতে বলেন ধোনি। গতকাল আইসিসি জানিয়ে দিয়েছে ভারতে অনুষ্ঠিতব্য টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে এই স্পাইডারকাম ক্যামেরা থাকবে। ৮ মার্চ থেকে ৩ এপ্রিল পর্যন্ত চলবে বিশ্বকাপের মেগা আসর। ধোনি ঝুলন্ত এই ক্যামেরায় বিরক্ত হলেও আইসিসির প্রধান নির্বাহী ডেভিড রিচার্ডসন জানিয়ে দিয়েছেন, এই ক্যামেরার জন্য খেলায় কোনো ঝামেলা হবে না। ‘হ্যাঁ, আমরা টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে স্পাইডারক্যাম ব্যবহার করতে যাচ্ছি। আমরা নিশ্চিত করব, যাতে এটা খেলায় কোনো সমস্যার সৃষ্টি না করে। টিভি চ্যানেলকে এটা ব্যবহারের কিছু নির্দেশনা দেয়া হবে।’ বিশ্বকাপের এই আসরে দ্রুত গতির উইকেট গড়তে চায় আইসিসি। ‘পিচের প্রস্তুতি সম্পর্কে যতটা জানি, তাতে এতটুকু নিশ্চিত করতে চাই যে দ্রুত গতির পিচ আমরা করতে চাই। ব্যাট অথবা বলের সঙ্গে আমরা আক্রমণাত্মক ক্রিকেটের একটা ব্র্যান্ড দাঁড় করাতে চাই। আমরা আত্মবিশ্বাসী যে বিশ্বকাপ টি-টোয়েন্টি সর্বোচ্চ মানের আক্রমণাত্মক এবং বিনোদনমূলক একটি ব্র্যান্ড হিসেবে পরিচিতি পাবে।’

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.