ব্রিটেনে কর্মস্থলে অর্ধেকেরও বেশি নারী যৌন হয়রানির শিকার

অর্ধেকেরও বেশি ব্রিটিশ নারী কর্মস্থলে যৌন হয়রানির শিকার হন। এদের মধ্যে ৮০ শতাংশ জানিয়েছে, এ বিষয়ে তারা নিয়োগকর্তার কাছে অভিযোগ করেনি। বুধবার ব্রিটেনের ট্রেডস ইউনিয়ন কংগ্রেস (টিইউসি) ও নারী অধিকার গ্রুপ এভরিডে সেক্সিজম এক যৌথ প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

জরিপে অংশগ্রহণকারীদের পাঁচজনের একজন জানিয়েছেন, তারা সরাসরি তাদের সুপারভাইজরদের হাতে যৌন নিপীড়নের শিকার হয়েছেন। প্রায় এক চতুর্থাংশ জানিয়েছেন, তারা অনুভব করতে পেরেছেন এ বিষয়ে যদি তারা অভিযোগ করে তাহলে বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে নেওয়া হবে না অথবা তাদের অভিযোগ বিশ্বাস করা হবে না।

যৌন নিপীড়নের শিকার নারীদের অধিকাংশের বয়স ১৮ থেকে ২৪ বছর বয়সের মধ্যে। প্রায় এক তৃতীয়াংশ নারী অভিযোগ করেছে, কর্মস্থলে তারা প্রায় যৌনসংক্রান্ত কৌতুকের শিকার হয়েছে। এক চতুর্থাংশ জানিয়েছেন, পুরুষ সহকর্মীরা অনেক সময় হাঁটু ও নিতম্বসহ তাদের দেহের বিভিন্ন অংশে অপ্রত্যাশিত স্পর্শ করে।

টিইউসি সমতা বিষয়ক প্রধান অ্যালিস হুড এ ব্যাপারে বলেন, ‘সংখ্যাটা অত্যন্ত বেদনাদায়ক এবং এটা সজাগ হওয়ার আহ্বান হওয়া উচিৎ। কর্মস্থলে যৌন হয়রানি নারীর জন্য এখনো অনেক বড় সমস্যা। এটা হঠাৎ করে বন্ধ হবে না।’

তিনি জানান, অনেক নারী এ বিষয়ে অভিযোগ করতে অস্বস্তিবোধ করে। তারা ভাবেন, হয়তো তাদের বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে নেওয়া হবে না অথবা তাদের ক্যারিয়ারে ক্ষতি হতে পারে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.