ভালোবাসায় সম্পর্কের গুরুত্ব

কারো প্রতি ভালোবাসা প্রকাশের জন্য কি একটি দিনই যথেষ্ট? আমাদের বেশিরভাগের উত্তর হবে ‘না’। তার পরেও দিবস উপলক্ষে এই একটি দিন আমাদের ভালোবাসার ছড়াছড়ি দেখা দেয়। সোশ্যাল মিডিয়া থেকে শুরু করে পথে ঘাটে অবধি।

দিনটি আবালবৃদ্ধবনিতা সবার হলেও, প্রধানত তারুণ্যের জয়জয়কারই সর্বত্র। সোশ্যাল মিডিয়াগুলো ইতিমধ্যে নানা ধরনের ট্রলে এবং স্ট্যাটাসে ভরে গেছে। অনেকের আবার বক্তব্য, এই ভালোবাসা দিবসে তাদের কোনো সঙ্গী না থাকায় তারা অনেক কষ্ট পাচ্ছেন। ভাবতেই পারছেন না কিভাবে তারা এই দিবসটি পালন করবেন।

মানুষের সকল অনুভুতি মস্তিষ্ক দ্বারা নিয়ন্ত্রিত। কিন্তু কখনো ভেবে দেখেছেন কি, এই ভালোবাসা নামক অনুভূতিটি ঠিক কবে থেকে আপনার মস্তিষ্কে উদয় হয়।

কেউ যখন আমাদের যত্ন নিতে শুরু করে আমরা তখনি তার প্রতি ভালোবাসা অনুভব করি। আর আমাদের এই অনুভুতির শুরু হয় পরিবার থেকে। কারণ যত্নটা আমরা প্রথম সেখান থেকেই পাই। সেই যত্নটাকে কখনো আলাদা করে ভেবে দেখি না বলে, ভালোবাসার অনুভূতিটি যেখান থেকে শুরু হয় আমরা সেখানে ভালোবাসা প্রকাশের কথা ভুলে যাই। আপনার যদি কোনো সঙ্গী না থাকে তাহলে মন থেকে নিজের পরিবারের সঙ্গে এই দিনটি কাটান।

জীবনের একটি বিশেষ সময়ে আপনার জীবনে বিশেষ কেউ থাকতেই পারে এবং তার প্রতি ভালোবাসা দেখানোটাও ভুল নয়। তাই বলে ভালোবাসা প্রকাশ যেন শুধু একটি দিনের জন্য অপেক্ষায় না থাকে। কেননা একদিনের উপহার দেওয়া, বাইরে ঘুরতে যাওয়া বা ডিনার করার মাধ্যমেই কি সব ভালোবাসা প্রকাশিত হয়ে পড়ে?

রিলেশনশিপ এক্সপার্ট লেখিকা সুসান বলেন, বিবাহোত্তর প্রেম বৈবাহিক সম্পর্কে দৃঢ় করে। সেই সম্পর্কে কিন্তু এই এক দিনের ভালোবাসা মুল্যহীন কারণ সেখানে প্রত্যেক দিন একে অপরকে নতুন করে ভালোবাসার প্রয়োজন পড়ে।

যেখানে ভালোবাসা আছে সেখানে সম্পদ এবং সাফল্য দুইটাই আছে। প্রয়োজন শুধু অনুভবের। কাউকে খুশি করার জন্য প্রতিদিনের একটি ছোট্ট কাজও কিন্তু ভালোবাসা প্রকাশের মাধ্যম হতে পারে।

সর্বোপরি সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে, আমাদের ভালোবাসা থাকা উচিত আমাদের সম্পর্কের ওপর, বিশেষ কোনো মানুষ কেন্দ্রিক নয়। সম্পর্কের ভিত্তিতে ভালোবাসা নির্ধারিত হয়। আপনি যদি আপনার সম্পর্কের গুরুত্ব বুঝতে পারেন তাহলে অবশ্যই তা ভালোবাসবেন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.