মহিলাদের নির্জন দ্বীপে একা ঘুরুন নির্ভয়ে

হারিয়ে যাওয়ার জন্য কোনও মানা নেই৷ কিছু দায়বদ্ধতা থাকতে পারে, কিন্তু তা তো কখনই প্রতিবন্ধকতা হয়ে দাঁড়ায় না৷ মেয়েদের একা ঘোরার ক্ষেত্রে এখন বাধা কাটছে৷ যাবতীয় ভয় কাটিয়ে এখন একাই ঘুরতে যাচ্ছেন মেয়েরা৷

পারিবারিক বাধা, সামাজিক দায়বদ্ধতা ক্রমশ কাটিয়ে উঠছেন তারা৷ কমবয়সি হোন বা বয়স্ক, বিবাহিতা হোন বা অবিবাহিতা, ভ্রমণপিপাসু অনেক মেয়েই এখন চান ঘুরতে গেলে শুধু মহিলাদের গ্রুপে যেতে, নয়তো একা যেতে৷

একটি সমীক্ষা জানাচ্ছে সারা দেশের প্রায় ৪২ শতাংশ মহিলা এখন চান শুধু মহিলাদের দলে ঘুরতে যেতে। অন্য দিকে একা একাই ঘুরতে যাওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন ২৭ শতাংশ মহিলা।

মোট ৩০০ জন মহিলাকে নিয়ে করা এই সমীক্ষায় ২৬ থেকে ৩০ বছর বয়সি মহিলা এবং ৪০ বছরের বেশি বয়সি মহিলারাই মূলত এই মত পোষণ করেছেন। সমীক্ষা বলছে বেড়াতে গেলে পুরুষরা চান সম্পূর্ণ বিশ্রাম নিতে কিন্তু মহিলারা নিজের মতো করে মাতামাতি করতে চান৷ যত জন মহিলা উত্তর দিয়েছেন তার মধ্যে এক-তৃতীয়াংশ জানিয়েছেন, তাঁরা মহিলাদের দলেই ঘুরতে যান, আর ১৩ শতাংশ জানিয়েছেন তাঁরা একা একা ঘুরতে গেছেন। তবে যা পরিস্থিতি মহিলাদের একা ঘোরা কোনওভাবেই নিরাপদ বলে মনে করছেন না সমীক্ষকরা৷

নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে শুধুমাত্র মহিলাদের বিলাসী অবসর যাপনের জন্য ফিনল্যান্ড উপকুলে তৈরি হয়েছে এক নতুন দ্বীপ। ফিনল্যান্ড সাগরে এই কৃত্রিম দ্বীপ ‘সুপারশি আইল্যান্ড’-এ কোনও পুরুষের প্রবেশাধিকার নেই।

এর কারগর এক মার্কিনী৷ ক্রিস্টিনা রথ নামের ওই মার্কিনীর এই পর্যটন প্রকল্প শুধুমাত্র মহিলাদের অবসর যাপনের জন্য। ভ্রমণে বেড়িয়ে নিজেকে ভুলে পুরুষ সঙ্গীর প্রতি মনোযোগ ব্যয় করেন অধিকাংশ মহিলা৷ তার ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা থেকেই এই বিষয়টির প্রতি মনোযোগী হন ক্রিস্টিনা, এর পরেই মাথায় আসে কেবলমাত্র মহিলাদের জন্য পর্যটন রিসোর্ট তৈরির অভিনব আইডিয়া।

ক্রিস্টিনা বলেন, ছেলেদের প্রতি তার কোনো বিদ্বেষ নেই। তিনি ছেলে মেয়ে সবার সাথেই ছুটি কাটাতে ভালবাসেন৷ তবে শুধুমাত্র মহিলাদের জন্য একটি ভ্রমণের ঠিকানা থাকা জরুরি বলে মনে করেন তিনি৷ যেখানে সংসার-অফিসের যাবতীয় টেনশনমুক্ত হয়ে সতেজ হওয়া যাবে৷

তাই যেসব মহিলা একা ঘুরতে ভালবাসেন, পকেট বুঝে ঘুরে আসুন শুধুমাত্র ফিনল্যান্ড সাগরের উপরে গড়ে ওঠা এই দ্বীপটি থেকে৷ সুপারশি আইল্যান্ড রিসোর্টে থাকছে ১০টি গেস্ট কেবিন, একটি স্পা এবং বিবিধ অ্যাডভেঞ্চারের খোরাক। সেই সঙ্গে প্রতিদিন নানান ফিটনেস ও রান্নার কোর্স করার ব্যবস্থা থাকছে। এছাড়া রয়েছে যোগা ও মেডিটেশনের ক্লাস।
তাই দেরি কেন? সঙ্গে জুটিয়ে নিন গোটা চার-পাঁচেক বান্ধবী৷ আর ডানা মেলে উড়ে যান ফিনল্যান্ডের আকাশে৷ পর্ণা সেনগুপ্ত, কলকাতা২৪

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.