মিলিটারি মা নিয়ে পশ্চিমা বিশ্বে তোলপাড়

‘যিনি রাঁধেন তিনি চুলও বাঁধেন’— প্রাচীন এই প্রবাদ ভিন্ন আঙ্গিকে তুলে ধরলেন মিলিটারি মায়েরা। তাঁরা দেখালেন, যে মা যুদ্ধ করেন তিনি সন্তানও মানুষ করেন। আমেরিকার এমনই একটি ছবি এই মুহূর্তে চমকে দিয়েছে গোটা বিশ্বকে। বদলে দিয়েছে ‘মাদারহুড’এর চলতি ধারণা। ছবিতে দেখা যাচ্ছে দশ জন মিলিটারি মা তাঁদের শিশু সন্তানকে স্তন্যপান করাচ্ছেন। ছবিটি এই মুহূর্তে ভাইরাল হয়ে গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

ছবিটি ফেসবুকে শেয়ার করেছেন তারা রুবি নামের একজন প্রাক্তন মার্কিন সেনানী। ১৯৯৭-২০০১ পর্যন্ত সেনাবাহিনীতে কাজ করেছেন তারা। বর্তমানে তিনি পেশায় ফটোগ্রাফার।

সম্প্রতি টেক্সাসের এল পাস্তো আর্মি পোস্টের হেডকোয়ার্টারে একটি নার্সিং রুম তৈরি হয়েছে। যেখানে সদ্য মায়েদের বিশ্রামের জন্য উপযুক্ত চেয়ার, নির্দিষ্ট সময় অন্তর সন্তানকে খাওয়ানোর জন্য দুধ— এই সব কিছুর ব্যবস্থা থাকছে। ওই বিশেষ ঘরটি তারা বিভিন্ন ছবি দিয়ে সাজাতে চান।

সে কারণেই গত বৃহস্পতিবার সেনাবাহিনীতে কর্মরতা কয়েকজন মাকে ডেকেছিলেন তারা। তিনি ভেবেছিলেন, হয়তো দু’তিন জন মা আসতে রাজি হবেন। কিন্তু সে দিন দশজন মিলিটারি মা এসেছিলেন। সম্পূর্ণ সেনার পোশাকে সন্তানদের স্তন্যপানের ছবি তুলেছেন তাঁরা।

তা দেখে অভিভূত তারা ফেসবুকে জানিয়েছেন, ‘‘আমার বিশ্বাস, আজ আমরা ইতিহাস তৈরি করেছি। এই গ্রুপ ছবি সেই মিলিটারি মায়েদের কথা বলছে, যারা যুদ্ধক্ষেত্রে শত্রু সামলেও সন্তানদের দেখভাল করছেন। মিলিটারি মায়েদের স্যালুট।’’ তারার তোলা ছবি এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় দেখে স্যালুট করছে গোটা বিশ্ব।

আনন্দবাজার পত্রিকা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.