মৃত্যুর মুখে ৬০ কোটি শিশু : ইউনিসেফ

২০৪০ সালের মধ্যে পানি সঙ্কটের কারণে ৬০ কোটি শিশু মৃত্যুর মুখে পড়তে চলেছে।

সম্প্রতি এক রিপোর্টে এমনই তথ্য প্রকাশ করেছে ইউনিসেফ। তাদের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিশ্ব উষ্ণায়নের কারণে ২০৪০ সালের মধ্যে বিশ্বের প্রতি ৪ জনের মধ্যে একজন শিশুকে এমন জায়গায় জীবনধারণ করতে হবে, যেখানে পানির যোগান থাকবে না বললেই চলে।

বুধবার বিশ্ব পানি দিবসে তাদের নতুন সমীক্ষার রিপোর্ট প্রকাশ করে ইউনিসেফ। ‘থার্স্টিং ফর এ ফিউচার: ওয়াটার অ্যান্ড চিলড্রেন ইন এ চেঞ্জিং ক্লাইমেট’ শীর্ষক ওই রিপোর্টে জানানো হয়, পরিস্থিতি যেদিকে এগোচ্ছে তাতে আগামী দু দশকের মধ্যে পানিসঙ্কটের কারণে মৃত্যুর মুখে পড়তে চলেছে প্রায় ৬০ কোটি শিশু। গরিব ও পিছিয়ে পড়া শিশুদের উপরই সবচেয়ে বেশি খারাপ প্রভাব পড়তে চলেছে।

খরার কারণে পানিসঙ্কট ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে ইথিয়োপিয়া, নাইজেরিয়া, সোমালিয়া, দক্ষিণ সুদান ও ইয়েমেনে। ইউনিসেফের আশঙ্কা চলতি বছরে শুধুমাত্র ইথিয়োপিয়াতেই পরিশ্রুত পানীয় পানি পাবেন না ৯০ লক্ষ মানুষ। দক্ষিণ সুদান, নাইজেরিয়া, সোমালিয়া ও ইয়েমেনে প্রবল অপুষ্টির কারণে মৃত্যুর ঝুঁকি রয়েছে ১৪ লক্ষ শিশুর।

জাতিসংঘের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পৃথিবী জুড়ে ৩৬টি দেশে ভূগর্ভস্থ পানিস্তর অনেকটা কমে গেছে। উষ্ণ তাপমাত্রা, সমুদ্রের পানিস্তর বৃদ্ধি, বন্যার আধিক্য, খরা, বরফ গলে যাওয়া ও দুর্বল বর্জ্য ব্যবস্থাপনার জন্যই এই পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.