ম্যাকেঞ্জিই বাংলাদেশের ব্যাটিং পরামর্শক

হাথুরুসিংহে চলে যাওয়ার পর থেকেই জাতীয় দলের জন্য কোচ খুঁজছে বাংলাদেশ। রিচার্ড পাইবাস, ফিল সিমন্সরা সাক্ষাৎকার দিয়ে গেলও কোচ হিসেবে তাদের চূড়ান্ত করতে পারেনি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

অবশেষে সাবেক ইংলিশ ক্রিকেটার ইংল্যান্ড ক্লাব ওরচেস্টারশায়ারের কোচ হিসেবে কাজ করা স্টিভ রোডসকে জাতীয় দলের প্রধান কোচের দায়িত্ব দিয়েছে ক্রিকেট বোর্ড।

জাতীয় দলের হয়ে ২০১৪ সাল থেকে গত মার্চ পর্যন্ত লম্বা সময় ধরে ফিল্ডিং কোচের দায়িত্ব পালন করা রিচার্ড হ্যালসল চাকরি থেকে ইস্তফা। তার পরিবর্তে দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে ঘরোয়া ক্রিকেট খেলা রায়ান লায়ন কুককে ফিল্ডিং পরামর্শক হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে বিসিবি।

প্রধান কোচ, ফিল্ডিং পরামর্শকের পর ব্যাটিং পরামর্শক হিসেবে আরেক দক্ষিণ আফ্রিকান সাবেক ক্রিকেটারকে নিয়োগ দিয়েছে বিসিবি।

সাবেক শ্রীলংঙ্কান ব্যাটসম্যান সামারাবিরার বিদায়ের পর থেকেই একজন ব্যাটিং কোচের প্রয়োজনীয়তা অনুভব করছে জাতীয় দল। সেই প্রয়োজনীয়তা পূরণে দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক ক্রিকেটার নিল ম্যাকেঞ্জিকে ব্যাটিং পরামর্শক হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

শুক্রবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বার্তায় নিল ম্যাকেঞ্জিকে ব্যাটিং পরামর্শক হিসেবে নিয়োগ দেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

বর্তমানে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে রয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। সফরের শুরুতে দুই ম্যাচের টেস্টে ব্যাটিং বিপর্যয়ের কারণে ২-০ ব্যবধানে পরাজিত হয়েছে সাকিব আল হাসানের নেতৃত্বাধীন দল। আগামী রোববার থেকে শুরু হবে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ। ওয়ানডে সিরিজ চলা অবস্থায় মঙ্গলবার জাতীয় দলের সঙ্গে যোগ দেবেন সাকিব-তামিমদের ব্যাটিং পরামর্শক নিল ম্যাকেঞ্জি।

কে এই ম্যাকেঞ্জি?

দক্ষিণ আফ্রিকার জোহানেসবার্সে জন্মগ্রহণকারী ম্যাকেঞ্জি, ২০০০ সালে আফ্রিকা দলে অভিষেক হয়। তার বাবা কেভিন ম্যাকেঞ্জিও ছিলেন একজন ক্রিকেটার। ২০০০ সাল থেকে ২০০৯ পর্যন্ত আফ্রিকার হয়ে ৫৮টি টেস্টে এক ডাবলসহ পাঁচটি সেঞ্চুরি এবং ১৬টি হাফসেঞ্চুরিতে ৩২৫৩ রান করেন। ৬৪টি ওয়ানডে ম্যাচে দুই সেঞ্চুরি এবং ১০টি অর্ধশতক মিলে ১৬৮৮ রান করেন এবং ২ টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেন এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান। ২০০৮ সালে বাংলাদেশের বিপক্ষে গ্রেম স্মিথের সঙ্গে উদ্বোধনী জুটিতে ৪১৫ রানের বিশ্ব রেকর্ড গড়েন ম্যাকেঞ্জি। সেই টেস্টে তিনি একাই করেছিলেন ২২৬ রান। একই বছর ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ক্রিজে টানা নয় ঘণ্টা অবস্থান করে ৪৪৭ রান মোকাবেলা করেন ১৩৮ রানের ইনিংসে খেলেন। ভারতের বিপক্ষে ১৫৫ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলে ক্রিকেট থেকে অব্যাহতি নেন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.