রাগ কমানোর দোকান!

রাগ, ক্রোধ, ক্ষোভ কিংবা হতাশা দূর করতে চীনের মানুষ একটি বিশেষ দোকানে যান, যার নাম ‘স্ম্যাশ’৷ সেখানে গিয়ে ইচ্ছেমতো জিনিসপত্র ভাঙতে পারেন তাঁরা৷

চীনের রাজধানী বেইজিংয়ে গত সেপ্টেম্বরে একটি দোকান খোলা হয়, যেখানে ক্রেতারা নিজেদের হতাশা, রাগ, ক্ষোভ দূর করতে পারেন৷ ইতিমধ্যে দোকানটি জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে৷

বেইজিংয়ে প্রতিষ্ঠিত দোকানটির নাম ‘স্ম্যাশ’৷ সেখানে গিয়ে মানুষ ইচ্ছেমতো জিনিস ভাঙতে পারেন৷

এভাবে তাঁরা হতাশা, রাগ কিংবা ক্রোধ থেকে মুক্তি পেতে চান৷ মদের বোতল থেকে শুরু করে পুরোনো টিভি, টেলিফোন, কম্পিউটার, ফার্নিচার, ম্যানিকিন ইত্যাদি ভাঙতে পারেন ক্রেতারা৷

এই দোকানে গিয়ে জিনিসপত্র ভাঙার জন্য অর্থ গুণতে হয়৷ আধ ঘণ্টার জন্য ক্রেতাদের প্রায় ২৩ ডলার দিতে হয়৷

সেপ্টেম্বরে প্রতিষ্ঠিত দোকানটি দিয়েছেন জিন মেং ও তার বন্ধুরা৷ প্রতিমাসে গড়ে অন্তত ছয়শ’ জন ক্রেতা এই দোকানে যান৷

পুরনো জিনিস পাওয়া যায় এমন দোকান থেকে প্রয়োজনীয় পণ্য জোগাড় করা হয়৷

এসব জিনিস ভাঙতে ক্রেতাদের হাতে দেয়া হয় ব্যাট এবং হাতুড়ি৷ এগুলো দিয়ে তারা মদের বোতল গুঁড়ো করেন, এমনকি ম্যানিকিনগুলো ইচ্ছেমত ভাঙেন৷

ক্রেতাদের সংখ্যা দিন দিন বাড়ায় বর্তমানে প্রতি মাসে দোকানটিতে ১৫ হাজার কাচের বোতলের প্রয়োজন হয়৷

সাধারণত দোকানটিতে ২০ থেকে ৩৫ বছর বয়সি মানুষরা বেশি যান৷ অল্পবয়সি একজন ক্রেতা জানান, জিনিসগুলো ভাঙার পর সেগুলোর ক্ষতবিক্ষত অবস্থা দেখে তাঁর মন শান্ত হয়৷

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.