লন্ডনে অগ্নিকান্ডে নিহতের প্রকৃত সংখ্যা নিয়ে বিতর্ক

লন্ডনে বহুতল ভবনে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে আসলে ঠিক কত মানুষ নিহত হয়েছে?

পুলিশের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী এ পর্যন্ত সেখানে নিহতের সংখ্যা তিরিশ।

আরও বহু মানুষ এখনো নিখোঁজ। কিন্তু তাদের সংখ্যা কত, তার সঠিক হিসেব কর্তৃপক্ষ দিতে পারছে না।

কিন্তু ব্রিটেনের একজন জনপ্রিয় সঙ্গীতশিল্পী লিলি অ্যালেন দাবি করেছেন, লন্ডনের গ্রেনফেল টাওয়ারে নিহতের প্রকৃত সংখ্যা আসলে ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে।

আরেক জন শিল্পী র‍্যাপার আকালা দাবি করছেন, নিহতের সংখ্যা কমিয়ে দেখানো হচ্ছে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় জল্পনা চলছে যে গ্রেনফেল টাওয়ারে নিহতের প্রকৃত সংখ্যা যে অনেক বেশি সেটি মিডিয়া জানে, তারপরও তারা প্রকৃত সংখ্যা প্রচার করছে না।

বিবিসি বিভিন্ন সূত্র থেকে জানতে পেরেছে যে এই ঘটনায় অন্তত ৭৬ জন এখনো নিখোঁজ রয়েছে। এদের মধ্যে রয়েছে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত একটি পরিবারের পাঁচ সদস্য।

নিহতের প্রকৃত সংখ্যা কত, তা জানানোর দায়িত্ব লন্ডনের মেট্রোপলিটন পুলিশের। তাদের দিক থেকে অবশ্য এখনো পর্যন্ত নিহতের সংখ্যা কত হতে পারে তার কোন পরিস্কার ধারণা দেয়া হয়নি।

এই অগ্নিকান্ডের ঘটনা নিয়ে ব্রিটেনে প্রধানমন্ত্রী টেরেজা মে’র সরকার প্রচন্ড সমালোচনার মুখে পড়েছে। প্রধানমন্ত্রী টেরেজা মে গতকাল ঘটনাস্থলে গেলেও কেন ঘটনার শিকার পরিবারগুলোর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন নি তা নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন অনেকে। বিবিসি।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.