সেই কিশোরী

হুমায়ুন সাদেক চৌধুরী

* উৎসর্গ : সাভার ট্রাজেডির শহীদদের *

ধ্বংস পাহাড়, তার নিচে দুই নূপুর পরা পা
এই কিশোরীর নাম ঠিকানা কিছুই জানি না

মনের চোখে দেখছি তাকে দূরের কোনো গাঁয়ে
আমবাগানে বাঁশবাগানে ছুটছে চপল পায়ে

যাচ্ছে কোথায় যাবে কোথায় কিস্সু জানে না
উপোস পেটে ছুটছে তাহার নূপুর পরা পা

ক্ষুধায় যে তার বুক ভেঙে যায় নূপুর বাজে ঝুম
এপাশ ওপাশ এপাশ ওপাশ দু চোখে নেই ঘুম

ক্ষুধার জ্বালায় গাঁ ছাড়লো আর ছাড়লো মা
সাভার এসে ঝুমঝুমিয়ে চলে তাহার পা

বদ্ধ ঘরে সেলাই মেশিন খটখটিয়ে চলে
তার ভেতরও নূপুর যেন গাঁয়ের কথা বলে

অবশেষে শেষের সেদিন এলো এলো এলো
ভাঙলো বাড়ি, হাজার লোকের প্রাণটা উড়ে গেলো

ভাঙলো বাড়ি মরলো মানুষ সেই কিশোরী নেই
বেরিয়ে আছে তার দু’টি পা,‘গল্প’ হলো এই

কোথায় যে তার বসতবাড়ি কোথায় তাহার গাঁ
চোখের তারায় আটকে আছে নূপুর পরা পা ।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.